Class 10 Model Activity Task Geography Part 6 (September, 2021)

Class 10 Model Activity Task Geography Part 6 (September, 2021):

মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক
দশম শ্রেণি
ভূগোল ও পরিবেশ

Part: 6

 

বিকল্পগুলি থেকে ঠিক উত্তরটি নির্বাচন করে লেখো :

১.১ আরোহণ প্রক্রিয়ায় সৃষ্ট একটি ভূমিরুপ হলো_
(ক) গিরিখাত

খ) রসে মতানে
(গ) বালিয়াড়ি

ঘ) গৌর

১.২ ঠিক জোড়াটি নির্বাচন করো-_

ক) উত্তর-পশ্চিম ভারতের প্রাটান ভঙ্গিল পর্বত -_ নীলগিরি
(খ) দক্ষিণ ভারতের পূর্ববাহিনী নদী__ নর্মদা
(গে) আন্দামান-নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের চিরহরিৎ বৃক্ষ __ মেহগনি
ঘে) উত্তর-পূর্ব ভারত __ কৃত মৃত্তিকা

১.৩ ভারতের রুঢ় বলা হয়__

ক) জামসেদপুরকে

(খ) দুর্গাপুরকে
(গ) ভিলাইকে

ঘ) বোকারোকে

বাক্যটি সত্য হলে “ঠিক’ এবং অসত্য হলে “ভুল” লেখো :

২.১ নদীখাতে অবধর্ষ প্রক্রিয়ায় সৃষ্ট গর্তগুলি হলো মন্থকুপ।
২.২ ভারতের উপকূল অঞ্চলে দিনেরবেলা স্থলবায়ু প্রবাহিত হয়।
২.৩ শুষ্ক ও উয্ন আবহাওয়া চা চাষের পক্ষে আদর্শ ।

 

সংক্ষিপ্ত উত্তর দাও :

৩.১ “অক্ষাংশভেদে হিমরেখার উচ্চতা ভিন্ন হয়।-_-ভৌগোলিক কারণ ব্যাখ্যা করো।
৩.২ হিমালয় পর্বতমালা কীভাবে ভারতীয় জলবায়ুকে নিয়ন্ত্রণ করে?

৪. ভারতীয় জনজীবনে নগরায়ণের নেতিবাচক প্রভাবগুলি উল্লেখ করো।

 

উত্তরপত্রঃ

১.১/ গ) বালিয়াড়ি
১.২/ গ) আন্দামান-নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের চিরহরিৎ বৃক্ষ- মেহগনি
১.৩/ খ) দুর্গাপুরকে

২.১/ সত্য
২.২) মিথ্যা
২.৩) মিথ্যা

৩/ ১) উত্তর: কোন স্থানের হিমরেখার উচ্চতা নির্ভর করে দিতে, ভূমির উচ্চতা এবং ঋতু পরিবর্তনের উপর। নিরক্ষরেখা থেকে উত্তর ও দক্ষিণের যেহেতু উষ্ণতা কমতে থাকে তাই হিমরেখার অবস্থান এর উচ্চতা ও কমতে থাকে। শীতকালীন উষ্ণতা কমে যায় বলে হিমরেখা পর্বতের নিচে এবং গৃষ্ম কালীন উষ্ণতা বাড়ার জন্য পর্বতের উপরের অংশে অবস্থান করে। তাই দেখা যায় হিমরেখা নিরক্ষীয় অঞ্চলে গড়ে 5500 মিটার এবং হিমালয় পর্বতে 4500 মিটার তাছাড়া আল্পস পর্বতের 2800 মিটার উচ্চতায় অবস্থান করে।

৩/২) উত্তর: ভারতের জলবায়ুর উপর হিমালয়ের প্রভাব: ভারতের উত্তর দিকে বিশাল আকার প্রাচীরের মতো দণ্ডায়মান হিমালয় পর্বত এই দেশের জলবায়ু কে নানা ভাবে প্রভাবিত করে। যেমন-
1/ তীব্র শীতের হাত থেকে রক্ষা করে: হিমালয় পর্বত সাইবেরিয়া থেকে আগত অতি শীতল ও শুষ্ক মহাদেশীয় মেরু বায়ুপুঞ্জ ওকে ভারতে প্রবেশ করতে বাধা প্রদান করে। এই কারণে দক্ষিণ এশিয়া একই অক্ষাংশে অবস্থিত অন্যান্য মহাদেশের তুলনায় শীতকালে অধিক উষ্ণ থাকে।
2/ বৃষ্টিপাতের সাহায্য করে: হিমালয় পর্বত দক্ষিণে সমুদ্র থেকে আগত আর্দ্র দক্ষিণ পশ্চিম মৌসুমি বায়ু কে প্রাচীরের মতো বাধা প্রদান করে। তারপর দক্ষিণ পশ্চিম মৌসুমি বায়ু পর্বতের ঢাল বরাবর উপরে উঠে বায়ু শীতল ঘনীভূত হয়ে উত্তর ভারতে ব্যাপক বৃষ্টিপাত ঘটায়।
3/ মনোরম জলবায়ু সৃষ্টি: উচ্চতার জন্য হিমালয় পার্বত্য অঞ্চলের জলবায়ু শীতল প্রকৃতির হয়। হিমালয়ের উঁচু স্থান গুলোতে শীতকালে তুষারপাত হয়, আবার গৃষ্ম কালে হিমালয়ের নিচু স্থান গুলির উষ্ণতা আরাম হ ভারতের জনসংখ্যা দ্রুত হারে বেড়ে যাওয়ার জন্য শহর নগরগুলি অপরিকল্পিত ভাবে বেড়ে ওঠেয় ও জলবায়ু বেশ মনোরম হয়।

৪/ ভারতীয় জনজীবনে নগরায়নের নেতিবাচক প্রভাব গুলি হল-
1) অপরিকল্পিত নগরায়ন: ভারতের জনসংখ্যা দ্রুত বেড়ে যাওয়ার জন্য শহর-নগর গুলি অপরিকল্পিত ভাবে বেড়ে ওঠে। তার ফলে কৃষি জমি, বনভূমির পরিমাণ কমে যায়।
2) বাসস্থানের অভাব: মানুষ জীবিকার খোঁজে শহরে চলে এলে এখানে বাসস্থানের অভাব সৃষ্টি হয়। বাসস্থানের অভাব এর জন্য মানুষ রেললাইনের পাশে রাস্তার ধারে আশ্রয় নেয়।
3) পরিবহনের সমস্যা: শহর নগর এ রাস্তায় যানবাহন বেশি। অপরিকল্পিত নগরায়নের জন্য রাস্তাগুলি শুরু হওয়ায় ফুটপাত দখল হওয়ার কারণে যানবাহনের সমস্যা দেখা যায়।
4) স্বাস্থ্য সমস্যা: শহর ও নগর এর শিল্প কারখানা, তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র ও যানবাহনের ধোঁয়া বায়ু দূষণ ঘটায়। তাছাড়া ঘনবসতির কারণে নানা রকমের রোগ দেখা যায়।
তাছাড়া নগরায়নের অন্যান্য নেতিবাচক দিকগুলো হলো শিক্ষার সমস্যা, মানুষের শহরমুখী প্রবণতা।

 

1 thought on “Class 10 Model Activity Task Geography Part 6 (September, 2021)”

Leave a Comment

Your email address will not be published.

x