Class 10 Geography Model Activity Task Part 7 October 2021

Class 10 Geography Model Activity Task Part 7 October 2021: WBBSE Class 10the subject Geography Model Activity Task Question & Answers 2021. Class X Geography Model Task Question & Answers in Bengali Version. পশ্চিমবঙ্গ মধ্যশিক্ষা পর্ষদের মাধ্যমিক ভূগোল প্রশ্ন ও উত্তর পার্ট ৭। Class 10 Geography Model Activity Task Part 7 October 2021।

ভূগোল দশম শ্রেণি 1/1)ঘ) ওয়াদি 2)খ) অপসারণ 3)ক) শীতকালে 4)গ) বেঙ্গালুরু 2/ 1) বার্খান বালিয়াড়ি নামে পরিচিত। 2) করি বা সার্ক। 3) ) সাতপুরা পর্বত। 4) কৃষ্ণ বা রেগুর মৃত্তিকা। 3/ 1) বহুমুখী নদী উপত্যকা পরিকল্পনা উদ্দেশ্য গুলি হল-- ক) জলাধার থেকে খাল কেটে সংলগ্ন অঞ্চলে সারাবছর জলসেচ করা হয় এবং বর্ষার অতিরিক্ত জল জলাধারের সঞ্চয় করে রাখা হয় ফলে নদী উপত্যকায় বন্যা নিয়ন্ত্রণ করা যায়। খ) নদীতে ওখানে সারা বছর জল থাকে বলে জলপথে পরিবহন করা যায় । জলাধারে মাছ চাষ করা হয়। জলাধারের জল পরিশ্রুত করে পানীয় জল সরবরাহ করা হয়। 2) ভারতীয় কৃষির সমস্যার সমাধান গুলি হল-- ক) কৃষি সংক্রান্ত বিষয়ে শিক্ষা প্রদান, সমবায় প্রথার চাষ, কৃষি ঋণের ব্যবস্থা করা ইত্যাদির মাধ্যমে কৃষি সমস্যার সমাধান করা সম্ভব। খ) ভারতীয় কৃষিতে শস্যের উৎপাদন কম তাই বিভিন্ন উন্নত যন্ত্রপাতি কাজে লাগিয়ে হেক্টরপ্রতি উৎপাদন বাড়ানো দরকার। গ) ভারতীয় কৃষকরা বেশিরভাগের দরিদ্র। মহাজনের কাছ থেকে ঋণ নিয়ে কৃষি কাজ করে। কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে যদি কৃষি ব্যাংক এবং বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো থেকে কৃষকদের স্বল্প সুদে ঋণের ব্যবস্থা করা হয় তাহলে কৃষি ব্যবস্থার উন্নতি করা সম্ভব। 4/1) ভারতীয় পরিবহন ব্যবস্থাকে সড়ক পথের গুরুত্ব অপরিসীম: সড়কপথে যেকোনো হালকা পর্নো অতি দ্রুত গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়া যায়। সড়কপথে দিনরাত সব সময় পরিবহন করা যায়। রেলপথের মতো কোনো নির্দিষ্ট নিয়ম মেনে সড়কপথ পরিবহনব্যবস্থা চলে না। দুর্গম স্থানে অথবা প্রতিরোধে সেনাবাহিনীর জন্য রসদ অস্ত্রশস্ত্র ও সড়ক পথে পাঠানোর সুবিধাজনক। সড়ক পথে বিভিন্ন আকৃতির যানবাহন ব্যবহার করা যায় ।এতে ইচ্ছামত পণ্য পরিবহন করা সড়কপথে উৎপাদক অঞ্চল থেকে বাজারের সহজে দ্রব্য পরিবহন করা যায়। 5/1) ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলের জনগণের তারতম্যের প্রাকৃতিক কারণ গুলি হল: ক) ভূপ্রকৃতি: হিমালয় পার্বত্য অঞ্চল উত্তর-পূর্ব এবং দক্ষিণ ভারতের পাহাড়ি অঞ্চলের ভূপ্রকৃতি ও পাথরে বলে কৃষিকাজের অনুপযুক্ত। তাই জনবিরল অপরদিকে উত্তর ভারতের সমভূমি এবং উপকূলীয় সমভূমি কৃষি যাতায়াত ব্যবস্থা এবং শিল্পে উন্নত। তাই ওই অঞ্চলের জনঘনত্ব বেশি। খ) জলবায়ু: উত্তর-পূর্ব ভারতের সমভূমি অঞ্চলে অনুকূল জলবায়ুর জন্য জনঘনত্ব বেশি অপরদিকে রাজস্থানের মরু অঞ্চলে এবং হিমালয়ের পার্বত্য অঞ্চলের জলবায়ু জন্য জনঘনত্ব কম। গ) নদ-নদী: উত্তর ভারতের গঙ্গা, সিন্ধু ও ব্রহ্মপুত্রের এবং দক্ষিণ ভারতের মহানদী, গোদাবরী, কৃষ্ণা, কাবেরী নদী উপত্যকার জনঘনত্ব বেশি কারণ এইসব নদী থেকে জল নিকাশি ব্যবস্থা, জলবিদ্যুৎ উৎপাদন, জলপথে পরিবহন, পানীয় জল সরবরাহ, মৎস্য চাষ পদ্ধতি নানা রকমের সুবিধা পাওয়া যায়। ঘ) মাটি: ভারতের যেসব স্থানে মিতৃকা উর্বর ও চাষযোগ্য সেখানে জনবসতির ঘনত্ব অপেক্ষাকৃত বেশি। ঙ) অরণ্য: পশ্চিমঘাট পর্বতের পশ্চিম ঢালে এবং পূর্ব হিমালয়ের পাদদেশে গভীর অরণ্যের জন্য লোক বসতি কম।

Class 10 Geography Model Activity Task Part 7 October 2021:

মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক ( অক্টোবর)

শ্রেণীঃ দশম

বিষয়ঃ ইতিহাস

                                                                পার্টঃ ৭

 

১. বিকল্পগুলি থেকে ঠিক উত্তরটি নির্বাচন করে লেখো  :  ১ × ৪ = ৪

১.১ মরু অঞ্চলের শুষ্ক নদীখাত হলো – 

উত্তর : ঘ) ওয়াদি

 

১.২ যে ক্ষয়কারী প্রক্রিয়া নদীর ক্ষয়কাজের সঙ্গে যুক্ত নয় সেটি হলো –

উত্তর : খ) অপসারণ

 

১.৩ উত্তর-পশ্চিম ভারতে পশ্চিমী ঝঞ্ঝার প্রভাব লক্ষ করা যায় –

উত্তর : ক) শীতকালে

 

১.৪ ভারতের বৃহত্তম তথ্য প্রযুক্তি শিল্প কেন্দ্র হলো –

উত্তর : গ) বেঙ্গালুরু

 

২. একটি বা দুটি শব্দে উত্তর দাও : ১ × ৪ = ৪

২.১ বায়ুর প্রবাহপথে আড়াআড়ি অবস্থিত বালিয়াড়ি কি নাম পরিচিত ?

উত্তর : বার্খান বালিয়াড়ি নামে পরিচিত ।

 

২.২ হিমবাহের উৎপাটন প্রক্রিয়া সৃষ্ট একটি ভূমিরূপের নাম লেখো ।

উত্তর :করি বা সার্ক ।

 

২.৩ ভারতের উপদ্বীপীয় মালভূমির একটি স্তুপ পর্বতের নাম লেখো । 

উত্তর : সাতপুরা পর্বত ।

 

২.৪ ভারতের কোন কৃত্তিকা কার্পাস চার্ষের পক্ষে আদর্শ ?

উত্তর : কৃষ্ণ বা রেগুর মৃত্তিকা ।

 

৩. সংক্ষিপ্ত উত্তর দাও :  ২ × ২ = ৪

৩.১ বহুমুখী নদী উপত্যকা পরিকল্পনার দুটি উদ্দেশ্য উল্লেখ করো । 

উত্তর : বহুমুখী নদী উপত্যকা পরিকল্পনা উদ্দেশ্য গুলি হল–
ক) জলাধার থেকে খাল কেটে সংলগ্ন অঞ্চলে সারাবছর জলসেচ করা হয় এবং বর্ষার অতিরিক্ত জল জলাধারের সঞ্চয় করে রাখা হয় ফলে নদী উপত্যকায় বন্যা নিয়ন্ত্রণ করা যায়।

খ) নদীতে সারা বছর জল থাকে বলে জলপথে পরিবহন করা যায় । জলাধারে মাছ চাষ করা হয়। জলাধারের জল পরিশ্রুত করে পানীয় জল সরবরাহ করা হয়।

 

৩.২ ভারতীয় কৃষির সমস্যা সমাধানের যে কোনো দুটি উপায় উল্লেখ করো । 

উত্তর:  ক) কৃষি সংক্রান্ত বিষয়ে শিক্ষা প্রদান, সমবায় প্রথার চাষ, কৃষি ঋণের ব্যবস্থা করা ইত্যাদির মাধ্যমে কৃষি সমস্যার সমাধান করা সম্ভব।
খ) ভারতীয় কৃষিতে শস্যের উৎপাদন কম তাই বিভিন্ন উন্নত যন্ত্রপাতি কাজে লাগিয়ে হেক্টরপ্রতি উৎপাদন বাড়ানো দরকার।
গ) ভারতীয় কৃষকরা বেশিরভাগই দরিদ্র। মহাজনের কাছ থেকে ঋণ নিয়ে কৃষি কাজ করে। কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে যদি কৃষি ব্যাংক এবং বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো থেকে কৃষকদের স্বল্প সুদে ঋণের ব্যবস্থা করা হয় তাহলে কৃষি ব্যবস্থার উন্নতি করা সম্ভব।

 

 

৪. নীচের প্রশ্নটির উত্তর দাও :  ৩ × ১ = ৩

৪.১ ‘ভারতীয় পরিবহন ব্যবস্থায় সড়কপথের গুরুত্ব অপরিসীম’ – বক্তব্যটির যথার্থতা বিচার করো । 

উত্তর : পরিবহন ব্যবস্থার ক্ষেত্রে সড়ক একটি অন্যতম প্রধান পরিবহন মাধ্যম। ভারতেও পরিবহন ব্যবস্থার ক্ষেত্রে সড়কপথের গুরুত্ব অপরিসীম ।

  • দ্রুততর পরিবহন : সড়কের মাধ্যমে যেকোনো জিনিস অতি সহজে অল্প সময়ের মধ্যে গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়া যায়।
  • কাঁচামালের সহজলভ্যতা : সড়কপথের দ্বারা সহজেই কৃষিজ ও কাঁচামাল তথা খনিজ কাঁচামাল খনি থেকে উত্তলোন করে শিল্প কেন্দ্রে পাঠানো যায়।
  • পার্বত্য যোগাযোগ নির্মাণ : উত্তর ভারত তথা ভারতের পার্বত্য অঞ্চল গুলিতে রেলপথ নির্মাণ অসম্ভব তাই এই ক্ষেত্রে সড়ক পথই সবচেয়ে ভালো উপায় ।

 

৫. নীচের প্রশ্নটির উত্তর দাও :   ৫ × ১ = ৫

৫.১ ভারতের জনবন্টনের তারতম্যের প্রাকৃতিক কারণগুলি বর্ণনা করো । 

উত্তর : বিভিন্ন প্রকার প্রাকৃতিক পরিবেশ ভারতের জনসংখ্যা বন্টনের তারতম্যের মূল কারণ । ভারতের জনবন্টনের তারতম্যের প্রাকৃতিক কারণগুলি হলো −

ক) ভূপ্রকৃতি: হিমালয় পার্বত্য অঞ্চলের উত্তর-পূর্ব এবং দক্ষিণ ভারতের পাহাড়ি অঞ্চলের ভূপ্রকৃতি পাথুরে বলে কৃষিকাজের অনুপযুক্ত তাই জনবিরল । অপরদিকে উত্তর ভারতের সমভূমি এবং উপকূলীয় সমভূমি কৃষি,  যাতায়াত ব্যবস্থা এবং শিল্পে উন্নত। তাই ওই অঞ্চলের জনঘনত্ব বেশি।

খ) জলবায়ু: উত্তর-পূর্ব ভারতের সমভূমি অঞ্চলে অনুকূল জলবায়ুর জন্য জনঘনত্ব বেশি অপরদিকে রাজস্থানের মরু অঞ্চলে এবং হিমালয়ের পার্বত্য অঞ্চলের জলবায়ু জন্য জনঘনত্ব কম।
গ) নদ-নদী: উত্তর ভারতের গঙ্গা, সিন্ধু ও ব্রহ্মপুত্রের এবং দক্ষিণ ভারতের মহানদী, গোদাবরী, কৃষ্ণা, কাবেরী নদী উপত্যকার জনঘনত্ব বেশি কারণ এইসব নদী থেকে জল নিকাশি ব্যবস্থা, জলবিদ্যুৎ উৎপাদন, জলপথে পরিবহন, পানীয় জল সরবরাহ, মৎস্য চাষ পদ্ধতি নানা রকমের সুবিধা পাওয়া যায়।
ঘ) মাটি: ভারতের যেসব স্থানে মৃত্তিকা উর্বর ও চাষযোগ্য সেখানে জনবসতির ঘনত্ব অপেক্ষাকৃত বেশি।
ঙ) অরণ্য: পশ্চিমঘাট পর্বতের পশ্চিম ঢালে এবং পূর্ব হিমালয়ের পাদদেশে গভীর অরণ্যের জন্য লোক বসতি কম।

এছাড়া দেখে নাওঃ

Class 10 English Model Activity Task October Part 7 [Question & Answers]

Class 10 Model Activity Task part 6(All Subject) Question & Answer

Class 10 History Model Activity Task Part 7 October , 2021

অন্যান্য ক্লাসের মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক এখানে ক্লিক করুন
এই ব্লগের হোমপেজে যাওয়ার জন্য এখানে ক্লিক করুন
আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেল-এ যুক্ত হওয়ার জন্য
এখানে ক্লিক করুন

 

Leave a Comment

Your email address will not be published.

x